খুমেক হাসপাতাল থেকে ওষুধ পাচারকালে কর্মচারি আটক:তদন্ত কমিটি গঠন

kmch.jpg

নিজস্ব প্রতিবেদক:খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (খুমেক) থেকে বিপুল পরিমাণ ওষুধ পাঁচারকালে মনিরা বেগম নামে এক কর্মচারিকে হাতেনাতে আটক করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) বেলা ১২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ওষুধ পাঁচারের বিষয়ে অধিকতর তদন্তের জন্য ৫ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, মঙ্গলবার দুপুরে অপারেশন থিয়েটার থেকে একটি ব্যাগে ওষুধ নিয়ে মনিরা বেগম হাসপাতালের বাইরে যাচ্ছিল। এসময় ডিউটিরত আনসারদের বিষয়টি সন্দেহ হলে তারা ব্যাগ তল্লাশী করে অপারেশনের কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন ধরণের ওষুধ পায়। এরপর তাকে পরিচালকের কক্ষে নেওয়া হয়। পরবর্তীতে মনিরা বেগমের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তার ব্যবহৃত লকারে গিয়ে আরও ওষুধ উদ্ধার করা হয়।

এগুলো রোগীদের অপারেশনের জন্য ব্যবহার করা হত। প্রাথমিকভাবে ওষুধের দাম নির্ধারণ করা যায়নি। তবে এই পাঁচার কাজের সাথে আরো কারা জড়িত আছে সেটা তদন্তের জন্য একটি কমিটি করা হয়েছে। আগামী ৫ দিনের মধ্যে তদন্ত কমিটি প্রতিবেদন দিবেন। তদন্ত কমিটিতে হাসপাতালের এনেস্থেসিয়ার বিভাগের এসোসিয়েট প্রফেসর ডা. দিলীপ কুমার, হাসপাতালের উপ-পরিচালক অপর্ণা বিশ্বাস, আরএমও অঞ্জন চক্রবর্তীসহ আরো দুইজন রয়েছেন।

এ বিষয়ে হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো: রবিউল হাসান বলেন, মনিরা বেগম আউটসোসিংয়ের কর্মচারি। তাই এই বিষয়ে ঠিকাদারের নিকট কৈফিয়ত চাওয়া হবে। এছাড়া ওষুধ পাঁচারের বিষয়ে আরও তদন্ত করার জন্য ৫ সদস্যের আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। এরপর তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top
error: Content is protected !!