নির্বাচনের ঘোষণা না আসলে পাকিস্তান গৃহযুদ্ধের দিকে আগাবে: ইমরান খান

hhuijhui.jpg

বিদেশ ডেস্ক:পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টির (পিটিআই) চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান সতর্ক করে বলেছেন, নির্বাচনের ঘোষণা না আসলে দেশ গৃহযুদ্ধের দিকে আগাবে। বুধবার এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে তিনি এই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন।

ইমরান খান বলেন, ‘আমরা দেখব তারা আমাদের আইনি ও সাংবিধানিক উপায়ে নির্বাচনের দিকে যেতে দেয় কি না অন্যথায় এই দেশ গৃহযুদ্ধের দিকে যাবে।’ তিনি বলেন, বর্তমান পার্লামেন্টে ফিরে যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না। কারণ এতে তার সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র মেনে নেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
পাকিস্তানের সদ্য সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানান, বিক্ষোভকারীদের সুরক্ষা চেয়ে করা তার দলের আবেদন নিয়ে সর্বোচ্চ আদালতের আদেশের অপেক্ষায় রয়েছেন তারা। এই সিদ্ধান্ত পাওয়ার পরই পরবর্তী মিছিলের তারিখ ঘোষণা করবেন তিনি।
পিটিআই চেয়ারম্যান স্বীকার করেন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তিনি সর্বময় ক্ষমতা ভোগ করেননি। দেশের সর্বময় ক্ষমতায় অন্য কোথাও নিহিত রয়েছে ইঙ্গিত করে তিনি বলেন, ‘সবাই জানে কোথায় তা রয়েছে’।

ওই সাক্ষাৎকারে ইমরান খানের সরকার উৎখাতে পার্লামেন্টে আনা অনাস্থা ভোটের রাতের ঘটনাপ্রবাহ সম্পর্কে জানতে চাওয়া হয়। ইমরান খান বলেন, ক্ষমতায় আসার পর থেকেই তার সরকার ‘দুর্বল’ ছিল। আর সেকারণেই তাদের জোটসঙ্গী খুঁজতে হয়েছিল। তবে এরকম পরিস্থিতি আবার দেখা দিলে তিনি সংখ্যাগরিষ্ঠ সরকার গঠনে নির্বাচন বেছে নেবেন বলেও জানান ইমরান খান।
পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান বলেন, আমাদের হাত বাধা ছিলল। সব জায়গা থেকে আমাদের ব্ল্যাকমেইল করা হচ্ছিলো। ক্ষমতা আমাদের সঙ্গে ছিল না। সবাই জানে পাকিস্তানের ক্ষমতা কোথায় থাকে, ফলে আমাদের তাদের ওপর নির্ভর করতে হতো’।

কাদের প্রতি ইঙ্গিত করা হচ্ছে তা বিস্তারিত না জানিয়ে ইমরান বলেন, ‘আমরা সব সময়ই তাদের ভরসা করেছি। তাদের অনেক কিছু ভালো আছে তবে তাদের করা উচিত ছিল এমন অনেক কিছুই তারা করেনি। তাদের ক্ষমতা আছে কারণ তারা এনএবি (ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টিবিলিটি ব্যুরো) এর মতো প্রতিষ্ঠান নিয়ন্ত্রণ করে, এগুলো আমাদের নিয়ন্ত্রণে ছিল না।’

সূত্র: ডন

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top
error: Content is protected !!