পশ্চিমবঙ্গে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে

image-516249-1643860448.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট: ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বৃহস্পতিবার খুলে দেওয়া হচ্ছে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। ক্লাসে ফিরছেন শিক্ষার্থীরা। ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ করেছে স্কুলগুলো। আপাতত অষ্টম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়ারা আজ থেকে স্কুলে যেতে পারবে।

সোমবার রাজ্য সরকারের সচিবালয় ‘নবান্ন’ থেকে এই ঘোষণা দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। খবর: আনন্দবাজার।

আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে জানা যায়, স্কুল (অষ্টম-দ্বাদশ শ্রেণি), কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, পলিকেটনিক, আইটিআই বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হয়ে যাবে। আগামী ৪ ও ৫ ফেব্রুয়ারি সরস্বতী পূজার ছুটি। সে ক্ষেত্রে ৩ তারিখ স্কুল খুললে তারা সবাই সরস্বতী পূজা করতে পারবে। অন্যদিকে পঞ্চম-ষষ্ঠ ও সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের জন্য পাড়ায় পাড়ায় পাঠশালা হবে।

সে ক্ষেত্রে পাড়াতেই ছোট ছোট জায়গায় শিক্ষালয় তৈরি করে শিক্ষকরা সেখানে শিক্ষা দেবেন। তবে ছোটদের স্কুল (প্রথম-চতুর্থ) এখনই খুলছে না।

এদিকে রাজ্যজুড়ে করোনা সংক্রমণ রোধে যে বিধিনিষেধ ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত জারি ছিল তা নতুন করে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে। যদিও সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসার ফলে একাধিক ক্ষেত্রে শিথিল করা হয়েছে।

‘ওয়ার্ক ফ্রম হোম’ এর ক্ষেত্রে ৭৫ শতাংশ, ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি নিয়ে থিয়েটার, সিনেমা হল, রেস্তোরাঁ, বার চালু রাখা যাবে। নাইট কারফিউর সময় কমিয়ে রাত ১১টা থেকে পর দিন ভোর ৫টা করা হয়েছে।

সরকারি ও বেসরকারি অফিসে ৭৫ শতাংশ জনবল নিয়ে কাজকর্ম শুরু করবে। ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের ক্ষেত্রেও ৭৫ শতাংশ উপস্থিতি রাখা যাবে। যদিও নির্বাচনি সম্পর্কিত কোনো মিটিং-মিছিলের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ থাকবে, সে ক্ষেত্রে সর্বাধিক ২০০ জন উপস্থিত থাকতে পারবেন। ৭৫ শতাংশ নিয়ে বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠান করা যাবে। খুলে দেওয়া হচ্ছে সব পার্ক।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top