কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলে গাঁজা গাছ

image-164648-1643863310.jpg

প্রতিদিন ডেস্ক

কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের পাশে কয়েকটি গাঁজা গাছ বেড়ে উঠেছে। হলটির দেশীয় ভবনের ১ নম্বর ব্লকের নিচে তিনটি গাছ দেখা গেছে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, ক্যাম্পাসে মাদকের সরবরাহ বেড়েছে পূর্বের তুলনায় দ্বিগুণ হারে। সন্ধ্যার পর থেকে হলগুলোতে মাদক সেবনের আড্ডা বসে। এরই ফসল গাঁজা গাছগুলো।এর আগেও ২০১৮ সালে হলটিতে গাঁজা গাছের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। পরে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ হলগুলোতে অভিযান চালায়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, আবাসিক হলটির ১ম ব্লকের নিচতলার ফাঁকা অংশে তিনটি গাঁজার গাছ জন্মেছে। এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের সচেতন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।

এ বিষয়ে বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থী ফিরোজ আহমেদ আরটিভি নিউজকে বলেন, পরীক্ষার সময়সহ প্রতিনিয়ত রুমের পাশে গাঁজা সেবনের আসর বসে। এ নিয়ে কর্তৃপক্ষের তেমন তৎপরতা দেখা যায় না। ফলে দিনের পরিক্রমায় মাদকের আসর বেড়েই চলছে।

এ বিষয়ে হলটির প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মাহবুবুল আরেফিন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেনের সাথে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের পাওয়া যায়নি।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top