মায়ের জন্য ওষুধ কিনে এসে দেখেন তিনি নিঃস্ব

image-517653-1644249579.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট: ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা রেখে মায়ের জন্য ওষুধ কিনতে যান রাজশাহীর বাঘার শামিম মিঞা। ওষুধ কিনে এসে দেখেন তার রিকশাটি নেই। সেটি চুরি হয়ে গেছে। এক নিমেষেই তিনি নিঃস্ব হয়ে গেলেন।

রোববার বিকালে রাজশাহীর বাঘা মাজার গেটের সামনে থেকে তার অটোটি কে বা কারা চুরি করে নিয়ে যায়। তারপর তিনি থানায় অবগত করে অটো উদ্ধারের জন্য এলাকায় ছুটে বেড়াচ্ছেন। সোমবার বিকাল পর্যন্ত শেষ সম্বলটুকু উদ্ধার করতে না পেরে হতাশায় পড়েছেন।

জানা যায়, শামিম মিঞা ধার-দেনা করে একটি অটোরিকশা কিনে চালাতেন। এ থেকে তার যা আয় হতো বৃদ্ধ মা, স্ত্রী, দুই মেয়ে নিয়ে কোনোমতে সংসার পরিচালনা করতেন। রোববার থেকে তার আয়ের উৎসটুকু হারিয়ে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছেন। শামিম মিঞা উপজেলার বাঘা নতুনপাড়া গ্রামের মৃত মনির মিঞার ছেলে।

এ বিষয়ে শামিম মিঞা জানান, আমি গরিব মানুষ। ধার-দেনা করে একটি অটো কিনে রাস্তায় চালাতাম। কিন্তু রোববার বিকালে বাঘা মাজার গেটের সামনে রেখে বৃদ্ধ মায়ের জন্য ওষুধ কিনে ফিরে দেখি অটো আর নেই। আমি ৫ সদস্যের পরিবার নিয়ে এখন বিপাকে রয়েছি।

অপরদিকে বাঘা পৌরসভার চত্বর থেকে শাহিন আলম বাবুলের সিটি ১০০ সিসি বাজাজ মোটরসাইকেল হারিয়ে গেছে। এ বিষয়টি তিনি থানায় অবগত করেছেন। কিন্তু মোটরসাইকেলটিও উদ্ধার করতে পারেননি পুলিশ। তিনি উপজেলার নিশ্চিন্তিপুর গ্রামের মৃত রওশন মিঞার ছেলে।

বাঘা থানার ওসি সাজ্জাদ হোসেনে বলেন, এ বিষয়ে আমাকে অবগত করেছেন। আমি বিভিন্ন থানায় জানিয়ে দিয়েছি। অটো এবং মোটরসাইকেল উদ্ধারের জন্য চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top