ইসলামাবাদে জনসমুদ্র ঢুকে পড়বে: ইমরান খান

imran.jpg

বিদেশ ডেস্ক:পাকিস্তানে নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করতে সরকারকে সতর্ক করে দিয়েছেন দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। শুক্রবার খাইবার পাখতুনওয়া প্রদেশের মারদানে এক বিশাল সমাবেশে তিনি এই হুশিয়ারি দিয়েছেন। তিনি বলেন, নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করা না হলে ‘সবাইকে সরিয়ে দিতে’ রাজধানী ইসলামাবাদে ‘জনসমুদ্র ঢুকে পড়বে’।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের প্রতি ইঙ্গিত করে ইমরান খান বলেন, এক ‘পলাতক’ লন্ডনে বসে আছে, তাকে অবশ্যই বুঝতে হবে পাকিস্তানের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার এখতিয়ার তার নেই। ইমরান জোর দিয়ে বলেন, তিনি জনগণকে ইসলামাবাদে ‘বিপ্লবের’ জন্য ডাকছেন, রাজনীতির জন্য নয়।
শাহবাজ শরিফ, আসিফ জারদারি এবং মওলানা ফজলুর রেহমানকে ‘থ্রি স্টুডেজ’ আখ্যা দিয়ে পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) প্রধান বলেন, তারা আমেরিকার দাস। এই তিন জনের সম্পদ বিদেশে পাচার করা আছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।
ইমরান খান অভিযোগ করেন, ক্ষমতাসীন জোট সরকার শিগগিরই যুক্তরাষ্ট্রের কাছে সহায়তা চাইবে। আর এই কারণেই পররাষ্ট্রমন্ত্রী বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারি আমেরিকার সঙ্গে বৈঠক করতে চাইছে।

বিলাওয়ালের প্রতি ইঙ্গিত করে ইমরান খান বলেন, ‘এটি সেই আমেরিকা যারা মায়ের সঙ্গে আপনার ফোনালাপ ফাঁস করেছিল, তখন তিনি বিদেশে আপনাকে পরিবারের সম্পদের বিবরণ শোনাচ্ছিলেন’। ইমরান আরও বলেন, পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) প্রধান যুক্তরাষ্ট্রের কাছে ‘অর্থ ভিক্ষা চেয়ে’ বলবে তা দেওয়া না হলে ইমরান (ক্ষমতায়) ফিরে আসবে।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, ‘আমি আমেরিকাকে ভালো করে জানি… তারা বলে থাকে কোনও কিছুই বিনামূল্যে নয়। সব জিনিসেরই দাম আছে আর পাকিস্তানের ক্ষেত্রে এই দাম হচ্ছে তাদের (সামরিক) ঘাঁটি দেওয়া।’

ইমরান খান বলেন, তার সরকার রাশিয়া থেকে ৩০ শতাংশ কম দামে গম ও তেল কিনতে চেয়েছিল। তবে বর্তমান সরকার যুক্তরাষ্ট্রের চাপের কারণে রাশিয়ার সঙ্গে বাণিজ্য করতে পারবে না।

পিটিআই প্রধান বলেন নতুন সরকারের অধীনে পাকিস্তানকে রাশিয়ার বিরুদ্ধে বক্তব্য দিতে হয়েছে কারণ যুক্তরাষ্ট্র তাই চেয়েছে। ইমরান দাবি করেন, তাকেও একই জিনিস করতে বলা হয়েছিল। ‘কিন্তু আমি তা প্রত্যাখ্যান করি কেননা আমরা সার্বভৌম দেশ আর কারও দাস নই,’ বলেন তিনি।

ইমরান খান জনগণকে ভয়ের শৃঙ্খল ভেঙে ইসলামাবাদে পৌছানোর আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘আমাদের ওপর চাপিয়ে দেওয়া আমেরিকার দাসরা আমাদেরকে কখনোই মহান দেশ হতে দেবে না।’

সূত্র: ডন

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top