খুলনায় পুলিশের উপস্থিতিতে জমি দখলের অভিযোগ : ফেসবুক লাইভে কলেজ ছাত্রীর সাহায্যের আবেদন

khulna-horintana-f.jpg

নিজস্ব সংবাদদাতা, খুলনা:খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ (কেএমপি)’র হরিণটানা থানা পুলিশের সহায়তায় জমি দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সংক্রান্তে খুলনার হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজের অনার্স শেষ বর্ষের ছাত্রী প্রতিভা রহমান মিথিলা ফেসবুক লাইভে এসে সকলের সহযোগিতা চেয়েছেন। আজ দুপুর ১টার দিকে হরিণটানা থানাধিন মডেল টাউন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। কলেজ ছাত্রী প্রতিভা রহমান মিথিলা ফেসবুক লাইভে এসে বলেন, একজন জিআইজির নির্দেশে হরিণটানা থানা পুলিশ তাদের পৈত্রিক জমি দখলের জন্য প্রতিপক্ষকে সহায়তা করছেন। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, দু’পক্ষের জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে সৃষ্ট ঘটনা নিয়ন্ত্রনে গিয়েছে পুলিশ।

ঘটনার খবর পেয়ে সরেজমিন হরিণটানা থানায় গিয়ে দেখা গেছে, অভিযোগকারী প্রতিভা রহমান মিথিলাসহ তার পরিবারের ৭জনকে থানার ডিউিটি অফিসারের কক্ষে বসিয়ে রাখা হয়েছে। তাদের ব্যবহৃত মুঠোফোন গুলো পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়।
এবিষয়ে হরিণটানা থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ মনিরুল ইসলাম শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে বলেন, ওই জমিতে স্থাপনা ভাঙ্চুরের অভিযোগে তাদেরকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তাছাড়া দু’পক্ষের কথা শোনা হচ্ছে, সিদ্ধান্ত পরবর্তিতে জানানো হবে।

কলেজ ছাত্রী প্রতিভা রহমান মিথিলা থানার ডিউটি অফিসারের কক্ষে বসে এ প্রতিবেদককে জানান, আগামীকাল শনিবার (১৫) জানুয়ারি আমার পরিক্ষা। একজন পুলিশের ডিআইজির বোন ওই জমিতে কিছু অংশ কিনেছেন। তবে জমি নিয়ে আদালতে মামলাসহ শরীকদের মধ্যে বিরোধ রয়েছে। ১৪ জানুয়ারি শুক্রবার সকাল থেকে ওই জমিতে পুলিশের সহায়তায় দখল নিতে গিয়েছেন প্রতিপক্ষরা। খবর পেয়ে দুপুর ১টার দিকে ঘটনাস্থলে এসে পুলিশের রোষাণলে পড়তে হয়। এরপর তাদেরকে থানায় নিয়ে আসা হয়। থানায় এনে তাদের কাছে থাকা মুঠোফোন গুলো পুলিশ হেফাজতে নেয় হয়েছে বলেও তিনি অভিযোগ করেন।

ঘটনাস্থল থেকে তাদেরকে নিয়ে আসা পুলিশ কর্মকর্তা উপ-পুলিশ পরিদর্শক টুম্পা জানান, ওই জমিতে থাকা ঘেরা বেড়া ভাঙ্চুরের অভিযোগে তাদেরকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। পরবর্তি সিদ্ধান্ত দিবেন উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

এদিকে কলেজ ছাত্রী প্রতিভা রহমান মিথিলার ফেসবুক লাইভটি খুলনার মিডিয়াকর্মিদের ম্যাসেঞ্জার গ্র“পসহ আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সংবাদ আদান প্রদানের বিভিন্ন ম্যাসেঞ্জার গ্র“পে ব্যপকভাবে শেয়ার হচ্ছে। ইতোমধ্যে নানাভাবে সমালোচনা হচ্ছে এ ঘটনাটি নিয়ে।

এদিকে খুলনা মেট্রেপলিটন পুলিশের সহকারি পুলিশ কমিশনার (সোনাডাঙ্গা জোন) আতিক আহমেদ চৌধুরী জানান, বিষয়টি সমাধানের জন্য হরিণটাণা থানা পুলিশ কাজ করছে। পরে আপনাদের বিস্তারিত জানানো হবে!

# কলেজ ছাত্রী প্রতিভা রহমান মিথিলা ফেসবুক লাইভ https://www.facebook.com/messenger_media/?thread_id=3154217341296813&attachment_id=353351986227953&message_id=mid.%24gAAs0vnQsIK2EiSxd1V-V-cOLofZ1

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top
error: Content is protected !!