পি কে হালদারকে জিজ্ঞাসার জন্য ভারত যেতে পারেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা

uiyyttrre48.jpg

প্রতিদিন ডেস্ক:ভারতে গ্রেফতার হওয়া আলোচিত প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পি কে হালদারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ভারতে যেতে পারেন তদন্ত সংশ্লিষ্ট একটি প্রতিনিধি দল। এই দলে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদকসহ বাংলাদেশ ব্যাংকের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট- বিএফআইইউ, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা থাকবেন।

বৃহস্পতিবার (১৯ মে) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পি কে হালদারকে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের একটি জরুরি বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। বৈঠকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন প্রতিনিধিও উপস্থিত ছিলেন। পি কে হালদারকে কীভাবে দ্রুততম সময়ে দেশে ফিরিয়ে আনা যেতে পারে, সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
দুদকের ভারপ্রাপ্ত সচিব, সচিব ও মহাপরিচালক সাঈদ মাহবুব খান জানান, পি কে হালদারকে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় জরুরি সভা হয়েছে। সভায় আইন, পররাষ্ট্র, বিএফআইইউ, ইন্টারপোল (বাংলাদেশ পুলিশের এনসিবি শাখা), দুদকসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় আসামিকে ফিরিয়ে আনার যে আইন রয়েছে, সেগুলো ব্যবহার করে কীভাবে পি কে হালদারকে দ্রুত দেশে ফিরিয়ে আনা যায়, সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।
গত শুক্র ও শনিবার (১৩ ও ১৪ মে) টানা দুই দিনের অভিযানে পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগনার অশোকনগরে পি কে হালদার, তার দুই ভাই প্রীতিশ ও পাণেশ হালদারসহ অন্যতম প্রধান সহযোগী সুকুমার মৃধার বাড়িতে অভিযান চালায় ডিরেক্টরেট অব এনফোর্সমেন্ট-ইডি। শনিবার (১৪ মে) পি কে হালদার, প্রীতিশ, উত্তম মিত্র, স্বপন মিত্র ও সুকুমার মৃধার জামাতা সঞ্জীব হাওলাদারকে গ্রেফতারের পর রবিবার (১৫ মে) তাদের প্রথমদফায় তিন দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। পরে গত মঙ্গলবার (১৭ মে) তাদেরকে কলকাতার অর্থ ঋণ আদালতে দ্বিতীয় দফায় সোপর্দ করে আবারও রিমান্ডে নিয়েছে ভারতের আর্থিক গোয়েন্দা সংস্থা ডিরেক্টরেট অব এনফোর্সমেন্ট- ইডি।

পিকে হালদারসহ ভারতে গ্রেফতার হওয়া পাঁচজনই বাংলাদেশি নাগরিক। পি কে হালদার ভারতে গিয়ে শিবশঙ্কর হালদার, উত্তম কুমার মিস্ত্রি উত্তম মিত্র, স্বপন কুমার মিস্ত্রি স্বপন মিত্র নামে জালিয়াতি করে নাগরিকত্বের কাগজপত্র তৈরি করেছেন। বাংলাদেশের দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক ও বাংলাদেশ ব্যাংকের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট-বিএফআইইউ’র দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতেই ইডি অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top
error: Content is protected !!