ভারতের নতুন প্রেসিডেন্ট ঘোষিত হবে বুধবার

india-president-elc-kp.jpg

বিদেশ ডেস্ক:ভারতের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হচ্ছে বুধবার। স্থানীয় সময় সকাল এগারোটা থেকে এই গণনা শুরু হবে। এই নির্বাচন অনেকটা আনুষ্ঠানিকতা হওয়ায় দ্রোপদী মুর্মুর বিজয় উদযাপনে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। ধারণা করা হচ্ছে বিরোধী দলের প্রার্থী যশবন্ত সিংকে ব্যাপকভাবে পরাজিত করবেন তিনি।

পার্লামেন্ট ভবনে বেলা এগারোটায় ভোট গণনা শুরু হবে। বেলা চারটায় ফলাফল ঘোষণার আশা করা হচ্ছে।
আশা করা হচ্ছে, ফলাফল ঘোষণার পর তিন মূর্তি মার্গে দ্রোপদীর মুর্মুর অস্থায়ী বাসভবন পরিদর্শন করে তাকে অভিনন্দন জানাবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।
দ্রোপদী মুর্মুর বিজয়ের পর দলের সদর দফতর থেকে রাজপথ পর্যন্ত রোড-শো এর আয়োজনের পরিকল্পনা রেখেছে দিল্লি বিজেপি। দলের অনেক সিনিয়র নেতা এই আয়োজনে যোগ দেবেন।

সব রাজ্য বিজেপি ইউনিটই বিজয় মিছিলের পরিকল্পনা রেখেছে। ফলাফল ঘোষণার পর এসব মিছিল শুরু হবে।

দ্রোপদী মুর্মুর নিজের শহর উড়িষ্যার রায়রংপুরের বাসিন্দারা বিজয় উদযাপনে ২০ হাজার মিষ্টি বিতরণের প্রস্তুতি নিয়েছে। এছাড়া উপজাতি নাচ ও বিজয় মিছিলেরও প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

উপজাতি নারী ও ঝাড়খন্ডের সাবেক গভর্নর দ্রোপদী মুর্মুকে রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হিসেবে বেছে নেয় ক্ষমতাসীন এনডিএ জোট। ধারণা করা হচ্ছে বিরোধী জোটে ভাঙন ধরাতে এবং নবীন পাটনায়েকের বিজু জনতা দল এবং জগনমোহন রেড্ডির ওয়াইএসআর কংগ্রেসের মতো জোটবিহীন দলের সমর্থন টানতে তাকে প্রার্থী বেছে নিয়েছে বিজেপি।

বিরোধী প্রার্থী যশবন্ত সিংয়ের প্রতি সমর্থন জানিয়েছে সবমিলে ৩৪টি দল। আর দ্রোপদী মুর্মু পেয়েছেন ৪৪টি দলের সমর্থন। তবে বেশ কয়েক জন আইনপ্রণেতা দলের সিদ্ধান্ত ভেঙে মুর্মুকে সমর্থন দেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন।

ভোট গণনা শুরু হবে এমপি ও এমএলএ ভোট আলাদা করার মাধ্যমে। প্রত্যেক এমপির ভোটের মান ৭০০। আর প্রতিটি রাজ্যের এমএলএ-দের ভোটের মান আলাদা। নতুন প্রেসিডেন্ট আগামী ২৫ জুলাই শপথ নেবেন।

সূত্র: এনডিটিভি

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top
error: Content is protected !!