খুলনায় ১৩ বছর পরে পিতৃপরিচয় দিলো আদালত : পিতার যাবজ্জীবন

gfd-20220922134228.webp

নিজস্ব প্রতিবেদন
খুলনায় প্রতিবেশী নারীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের ফলে জন্ম নেওয়া সন্তানকে পিতৃ পরিচয় দেওয়ার সিদ্ধান্ত দেয় খুলনা একটি আদালত। একই সাথে ধর্ষণের ঘটনায় রফিকুল ইসলাম ঢালী নামের একজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। রায় ঘোষণার সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক আব্দুস সালাম খান এ রায় ঘোষণা করেন।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ফরিদ আহমেদ জানান, রফিকুল ইসলাম ঢালী ও ভিকটিম মহানগরীর ছোট বয়রা গোলদারপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তারা পরস্পরের প্রতিবেশী। ওই নারীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ২০০৯ সালের ২৬ আগস্ট থেকে একই বছরের ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত একাধিকবার ধর্ষণ করেন।

পরে ভিকটিম অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে আসামিকে বিয়ের জন্য চাপ দেন। একপর্যায়ে ভিকটিমকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিতে থাকেন আসামি। পরে তিনি রফিকুল ইসলাম ঢালীকে আসামি করে সোনাডাঙ্গা থানায় ধর্ষণ মামলা করেন।

২০১০ সালের ২৬ জানুয়ারি রফিকুলকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন সোনাডঙ্গা থানার এসআই মুনসুর শফিকুল ইসলাম।

ফরিদ আহমেদ রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, ধর্ষণের ফলে যে সন্তানের জন্ম হয়েছে তার বয়স ১২ বছর হয়ে গেছে। এ রায়ে ওই সন্তান পিতৃপরিচয় পেয়েছে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top
error: Content is protected !!