পুলিশ পরিচয়ে ২০ লাখ টাকা ছিনতাই, গ্রেপ্তার ৫

fake-police.jpg

প্রতিদিন ডেস্ক
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ২০ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় মূল হোতাসহ ৫ ডাকাতকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের রমনা জোনাল টিম।

যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে তারা হলেন- গোলাম মোস্তফা শাহীন ওরফে শাহীন পুলিশ, মো. শাহাদৎ হোসেন, সাইদ মনির আল মাহমুদ, মো. রুবেল ইসলাম ও মো. জাকির হোসেন।

গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত ১টি প্রাডো গাড়ি, ছিনতাই করা নগদ ১ লাখ ১০ হাজার টাকা, ১টি ওয়াকিটকি, ১ জোড়া হ্যান্ডকাপ, ২টি কালো রঙের কোটি, ১টি স্টিলের লাঠি, ১টি হাতুড়ি, ১টি প্লাস, ১টি স্পার্কার (যা পিস্তল সদৃশ)।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর উত্তরা, কলাবাগান ও নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এলাকায় বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর ) দুপুর ১২টায় ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেন, গত ৩ সেপ্টেম্বর নিউমার্কেটের একজন স্বর্ণ ব্যবসায়ী তাঁতিবাজার থেকে ২০ লাখ টাকা নিয়ে পাঠাও মোটরসাইকেল করে নিউমার্কেটের উদ্দেশে রওয়ানা হন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবের মূল প্রবেশ গেটের সামনে পৌঁছালে তার পথরোধ করে নিজেদের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য পরিচয় দিয়ে ওই ব্যবসায়ীকে গাড়িতে তুলে নেয়। গামছা দিয়ে চোখ বেঁধে, হ্যান্ডকাপ পরিয়ে তার চোখে-মুখে আঘাত করা হয় ও তার সঙ্গে থাকা নগদ ২০ লাখ টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ের পাশে ফেলে দিয়ে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় শাহবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়।

ডিবি প্রধান বলেন, মামলা হওয়ার পর এ বিষয়ে তদন্ত শুরু করে ডিবির রমনা জোনাল টিম। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রাজধানী ও নারায়ণগঞ্জ জেলার সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে শাহীন, শাহাদৎ, সাইদ, রুবেল ও জাকিরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, গ্রেপ্তাররা ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ডাকাতি-ছিনতাই করতেন। ডাকাতি করা তাদের একমাত্র পেশা। গ্রেপ্তাররা ডাকাতির ঘটনায় জড়িত থাকার কথা প্রাথমিকভাবে স্বীকার করেছে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top
error: Content is protected !!