পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় গ্রেফতার

partha-arrested-kp.jpg

বিদেশ ডেস্ক:ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করেছে কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। শিক্ষক নিয়োগ কেলেংকারির ঘটনায় প্রায় ২৭ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শনিবার স্থানীয় সময় সকাল দশটার দিকে তাকে গ্রেফতারের ঘোষণা দেওয়া হয়।

শুক্রবার ভোরে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য যায় ইডির একটি দল। দিনের পুরো সময় এবং রাতভর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এই জিজ্ঞাসাবাদের মধ্যেই ১৩টি স্থানে অভিযান চালায় ইডি। এরমধ্যে মন্ত্রীর ঘনিষ্ঠ এক সহযোগীর বাড়ি থেকে ২০ কোটি রুপি উদ্ধারের কথা জানায় ইডি।

রাজ্য সরকারে এক সময়ে শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। ওই সময়ে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এই অভিযোগ তদন্ত শুরু করেছে ইডি।
ইডির দাবি, দক্ষিণ কলকাতায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ‘ঘনিষ্ঠ’ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে নগদ রুপি উদ্ধার করা হয়। সেখানে প্রায় ২০টি মোবাইল পাওয়ার কথাও জানায় তারা। ইডির ধারণা, বেআইনি শিক্ষক নিয়োগের সময় নেওয়া ঘুষের অংশ এসব রুপি।

সকাল ১০টা নাগাদ পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে নাকতলার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। কনভয় করে তাকে সিজিও কমপ্লেক্সের দিকে নিয়ে যাওয়া হয়। সিজিও কমপ্লেক্সে ইতোমধ্যেই আরও বেশি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। কড়া নিরাপত্তার ঘোরাটোপে মুড়ে ফেলা হয়েছে গোটা চত্বর। দিল্লি থেকে দুই ইডি কর্মকর্তা কলকাতা পৌঁছেছেন বলে জানা যাচ্ছে। শনিবারই পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে আদালতে তোলা হতে পারে।

পশ্চিমবঙ্গে বাম সরকারের আমলে বিরোধী দলনেতা ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। আর তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর থেকেই প্রথম সারির নেতা হিসেবেই পরিচিত তিনি। শিক্ষা দফতর, শিল্প দফতরের মতো গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব সামলেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, তৃণমূল শিবিরেও তার জায়গা বেশ গুরুত্বপূর্ণ। তৃণমূল মহাসচিব তিনি। তাই তার এই গ্রেফতার রাজ্য তথা শাসক দলের জন্য যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top
error: Content is protected !!