ইউক্রেনের পাল্টা হামলায় রুশ নিয়ন্ত্রিত খেরসন বিচ্ছিন্ন: ব্রিটেন

kkkpp.jpg

বিদেশ ডেস্ক:ইউক্রেনের একটি পাল্টা হামলায় রাশিয়ার দখলে থাকা দক্ষিণাঞ্চলীয় খেরসন শহর কার্যত বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। এর ফলে ডিনিপ্রো নদীর কাছে অবস্থান নেওয়া কয়েক হাজার রুশ সেনা চরম ঝুঁকিতে রয়েছে। বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা ও গোয়েন্দা কর্মকর্তারা এমন দাবি করেছেন। এ খবর জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স ।

খেরসনকে রুশ দখলমুক্ত করার অঙ্গীকারের কথা স্পষ্টভাবে ঘোষণা করেছে ইউক্রেন। ২৪ ফেব্রুয়ারি রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের নির্দেশে অভিযান শুরুর প্রথম দিকে খেরসন দখলে নেয় রাশিয়া।
ব্রিটেনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, ইউক্রেনের সেনারা ডনিপ্রো নদীর অন্তত তিনটি সেতু দূরপাল্লার কামান ব্যবহার করে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে।

নিয়মিত গোয়েন্দা বুলেটিনে আরও বলা হয়েছে, রাশিয়া ৪৯তম সেনাবাহিনী ডনিপ্রো নদীর পশ্চিম তীরে অবস্থান নিয়েছে। তারা এখন চরম ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। খেরসনসহ রুশ নিয়ন্ত্রিত আরও কিছু শহর অন্যান্য এলাকা থেকে কার্যত বিচ্ছিন্ন।

এর ফলে খেরসন দখলকে অভিযানের সফলতা হিসেবে তুলে ধরার রুশ চেষ্টা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলেও উল্লেখ করেছে ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।

ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির এক উপদেষ্টা ওলেক্সি আরেস্টোভিচ বলেছেন, পূর্ব দিকে দক্ষিণে ব্যাপক সেনা মোতায়েন করছিল রাশিয়া। এটি রুশ কৌশলের বড় পরিবর্তন। তারা আক্রমণ থেকে প্রতিরক্ষায় মনোযোগ দিচ্ছে।

জেলেনস্কি বলেছেন, ডনিপ্রো নদীর আন্তোনিভস্কি সেতু পুনর্নির্মাণ করবে ইউক্রেন।

রুশ কর্মকর্তারা এর আগে বলেছিলেন, সেনাদের নদী পারাপারের জন্য তারা পন্টুন ব্রিজ ও ফেরি ব্যবহার করবে।

বুধবার রুশ সমর্থিত যোদ্ধারা দাবি করে, তারা সোভিয়েত আমলের কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র ভুহলেহির্স্ক দখল করেছে।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top
error: Content is protected !!