মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলারকে তলব করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

p.montri.jpg

প্রতি‌দিন ডেস্ক:র‌্যাবের সাবেক মহাপরিচালক ড. বেনজীর আহমেদ (বর্তমানে পুলিশের মহাপরিদর্শক) ও বর্তমান মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনসহ ছয়জন কর্মকর্তার ওপর কেন যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হলো তা জানতে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত আর্ল মিলারকে তলব করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। শনিবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন তাকে ডেকে পাঠান। পরে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব করা হয়েছে এবং তিনি নিষেধাজ্ঞার ঘটনায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন।’

এদিকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ফরেন সার্ভিস একাডেমিতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘কোনও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলে তার প্রধানকে যুক্ত করা যুক্তরাষ্ট্রের একটা নতুন ঢঙ। র‌্যাব এবং এর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা দুঃখজনক।’
ছয় কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘যেকোনও অভিযোগ তথ্যভিত্তিক হওয়া উচিত। ১০ বছরে ৬০০ লোককে মারা হয়েছে ঢালাওভাবে বলা ঠিক না। যুক্তরাষ্ট্রের মতো পরিপক্ক গণতন্ত্রের কাছ থেকে এমন ঢালাও অভিযোগ কাম্য নয়। কারণ তাদের দেশে প্রতি বছর ৬ লাখ লোক নিখোঁজ হয়।’
মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে র‌্যাব-এর সাবেক মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ ও বর্তমান মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনসহ সংস্থাটির ছয় কর্মকর্তা ও র‌্যাবের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রের ট্রেজারি ডিপার্টমেন্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তালিকায় এই তথ্য দেখা গেছে। মার্কিন ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট বলছে, ‘বাংলাদেশ সরকারের মাদকবিরোধী যুদ্ধে আইনের শাসন এবং মানবাধিকার ও মৌলিক স্বাধীনতার প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনে ব্যর্থ হয়ে মার্কিন স্বার্থের জন্য হুমকি হয়ে উঠছে র‌্যাব।’

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top