হামলা চালালে রাশিয়ার ওপর নরক নেমে আসবে

image-517621-1644245068.jpg

ডেস্ক রিপোর্ট: ইউক্রেন নিয়ে উত্তেজনা কিছুতেই থামছে না। শনিবার নামে প্রকাশে অনিচ্ছুক মার্কিন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রাশিয়া ইউক্রেনে হামলার ৭০ শতাংশ প্রস্তুতি শেষ করেছে।

আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, রাশিয়া ইউক্রেনে হামলা করতে যাচ্ছে— যুক্তরাষ্ট্রের এমন দাবি নিয়ে সংশয় রয়েছে। ইউক্রেনের নিরাপত্তা কর্মকর্তারা বলেছেন, বড় ধরনের হামলা কথা ‘অভ্যন্তরীণ এবং ভূরাজনৈত্তিক প্রক্রিয়া’ চালিত।

‘হামলা আসন্ন’ যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্ট বাইডেনের এমন চরিত্রায়নে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভ্লদমির জেলনস্কিও হতাশা প্রকাশ করেছেন।

ইউক্রেনের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যান্ড্রি জাহরোডনিউকের নেতৃত্বাধীন থিঙ্ক ট্যাঙ্ক ‘সেন্টার ফর ডিফেন্স স্ট্রাটেজির এক রিপোর্টে বলা হয়েছে, প্রধান শহর কিয়েভ দখল এবং সর্বাত্মক হামলার বিষয়টি নিয়ে বড় ধরনের দ্বিমত রয়েছে। যদিও অধিকাংশ পর্যবেক্ষক ‘ইউক্রেন হুমকির সম্মুখীন’ এ বিষয়ে একমত প্রকাশ করেছেন।

ইউক্রেনের কূটনীতিক এবং সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রীর সহযোগী ‘আলেকজান্ডার খারা’ আল জাজিরাকে বলেন, যেহেতু আমরা ২০১৪ সাল থেকেই রাশিয়ার আগ্রাসনের মধ্যে রয়েছি সুতরাং, নতুন করে আক্রমণের কথা বলা উচিত নয়; ‘সর্বাত্মক যুদ্ধ’ বলাই উপযুক্ত।

রাশিয়া সমর্থিত বাহিনী দোনেতস্ক এবং লুহানস্কের বাইরের এলাকা দখলের চেষ্টা করলে কী ঘটবে এমন প্রশ্নের জবাবে ‘আলেকজান্ডার খারা’ বলেন, তাদেরকে ২ লাখ ৬০ হাজার সদস্যের শক্তিশালী বাহিনীর মুখোমুখি হতে হবে। আমাদের ৪ লাখের বেশি অভিজ্ঞ ব্যক্তি আছেন যারা দোনবাসে যুদ্ধের সম্মুখিন হয়েছেন। তাদের লড়াইয়ের অভিজ্ঞতা রয়েছে। সুতরাং আক্রমণকারীরা রক্ষা পাবে না। এ সময় তিনি বলেন, ইউক্রেনে আক্রমণ করলে রাশিয়ানদের জন্য নরক হবে। এ সময় তিনি ব্রিটিশদের ধন্যবাদ দিয়ে বলেন, আমাদের বেশ শক্তিশালী অ্যান্টি ট্যাঙ্ক মিসাইল রয়েছে। দেশের নিজস্ব সংগ্রহেও বেশ ভারি অস্ত্র মজুত আছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top
error: Content is protected !!