সরকারিভাবে পাটকলগুলো পুনরায় চালু না করতে মত দিয়েছে সংসদীয় স্থায়ী কমিটি

image-165288-1644256340-1.jpg

প্রতিদিন ডেস্ক
লোকসানে থাকা দেশের পাটকলগুলো পুনরায় সরকারিভাবে চালু না করতে মত দিয়েছে সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। তারা বলেছে, এসব পাটকল চালু করে সরকারের অর্থ অপচয় করার কোনো যৌক্তিকতা নেই।

সোমবার (৭ জানুয়ারি) সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত সংসদীয় কমিটির বৈঠকে আলোচনা হয় বিষয়টি নিয়ে।কমিটির সভাপতি উপাধ্যক্ষ মো. আব্দুস শহীদের সভাপতিত্বে কমিটির সদস্য নূর-ই-আলম চৌধুরী, ইউসুফ আব্দুল্লাহ হারুন, এ.বি.তাজুল ইসলাম, আহসান আদেলুর রহমান, ওয়াসিকা আয়শা খান এবং খাদিজাতুল আনোয়ার আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন।

সভাপতি আব্দুস শহীদ বলেন, তিনটি জুট মিল উন্নয়নে প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছিল। কিন্তু সেই পাটকলগুলো বন্ধ করে দিয়েছে সরকার। নতুন করে সরকারিভাবে পাটকল চালু হবে কী হবে না, এই নিয়ে অনেক প্রশ্ন এসেছে। আমরা বলেছি, এগুলো চালু হবে কি না, সেটা সরকারের সিদ্ধান্তের বিষয়। তবে আমরা মনে করি, অলাভজনক প্রতিষ্ঠান চালু করে সরকারের অর্থ অপচয়ের যৌক্তিকতা নেই।

তিনি আরও বলেন, ছোট ছোট হলেও কিছু প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে ফিজিবিলিটি স্ট্যাডি না করে। আমাদেরও মনে হয়েছে জনস্বার্থে এগুলো কার্যকর হবে না। কিছু প্রকল্পের বাস্তবায়নকাল শেষ হলেও কিন্তু বাস্তবায়ন ৫ শতাংশ হয়নি। মন্ত্রণালয়ও যুক্তি দেখিয়েছে। তারা বলেছে, এগুলো প্রয়োজন ছাড়াই সিদ্ধান্ত হয়েছে। আমরা রিওয়ার্ড ও পানিশমেন্টের সুপারিশ করেছি। কেউ দোষ করলে তাকে শাস্তির আওতায় আনতে, আবার কেউ ভালো কাজ করলে তাকে পুরস্কৃত করতে বলেছি আমরা।

মুজিবকেল্লার নির্মাণ কাজে অগ্রগতি কম হওয়ার কথা উল্লেখ করে কমিটির সভাপতি বলেন, এ প্রকল্পের বাস্তব অগ্রগতি কাঙ্ক্ষিত নয়। অবশ্য বাস্তব সমস্যাও ছিল। বুয়েট যে রিপোর্ট দিয়েছিল, তা সঠিক ছিল না। পরে ডুয়েট থেকে সেটা সঠিকভাবে করা হয়েছে। প্রকৌশলীরা একেকজন একেকভাবে রিপোর্ট দিলে বাস্তবায়ন কর্তৃপক্ষের তো সমস্যা হবেই। ভবিষ্যতে যুক্তিপূর্ণ উপায়ে বাস্তবায়নের পদক্ষেপ নিতে বলেছি আমরা

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top
error: Content is protected !!