বিশ্বকাপ ফুটবলের ট্রফি এখন বাংলাদেশে

sdfsdfsdfdfs.jpg

স্পোর্টস ডেস্ক:প্রতীক্ষার অবসান হলো অবশেষে। ২০২২ কাতার বিশ্বকাপ ফুটবলের ট্রফি এসে ঢাকায় পৌঁছেছে। তাতে ২০১৩ সালের পর আবারও সোনালি ট্রফি দেখার সুযোগ পাচ্ছেন দেশের ফুটবল প্রেমীরা।

সাধারণত প্রতি বিশ্বকাপের আগে এই ট্রফি বিভিন্ন দেশ প্রদক্ষিণ করে। তারই অংশ হিসেবে এবার ৫১টি দেশের মধ্যে ছিল বাংলাদেশ। বিশ্বকাপের আকর্ষণীয় ট্রফিটি এবার পাকিস্তান ঘুরে চার্টার্ড বিমানে করে বুধবার ঢাকায় অবতরণ করেছে।খাঁটি স্বর্ণ দিয়ে তৈরি ৬.১৪২ কেজি ওজনের ট্রফিটি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন ঘুরে পরের দিন আর্মি স্টেডিয়ামে প্রদর্শনের জন্য রাখা হবে।
বিশ্বকাপের স্পন্সর কোকা-কোলার সৌজন্যে ট্রফির সঙ্গে বাংলাদেশে এসেছেন ফিফার সাত কর্মকর্তাও। এছাড়া ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ী তারকা ক্রিস্তিয়ান কারেম্বুও এসেছেন। ৫১ বছর বয়সী এই ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার খেলা ছেড়েছেন অনেক আগে। ১৯৯৮ সালে ফ্রান্সের হয়ে তিনি বিশ্বকাপ জিতেছিলেন। ১৯৯২ থেকে ওই বিশ্বকাপেই শেষবার ফ্রান্সের জার্সিতে নামা কারেম্বুর ক্যারিয়ার বেশ সমৃদ্ধ। নীল জার্সিতে ৫৩ ম্যাচে করেছেন ১ গোল।
পৌনে ১১ টায় ট্রফিটি আসার কথা থাকলেও প্রায় পৌনে এক ঘণ্টা পর সেটি এসে পৌঁছেছে। বিশ্বকাপ ট্রফি হযরত শাহজালাল বিমানবন্দরে গ্রহণ করেছেন বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিন ও অন্যতম সহ-সভাপতি কাজী নাবিল আহমেদসহ অন্যরা। সেখান থেকে ট্রফি বিকালে যাবে বঙ্গভবনে। সন্ধ্যায় নেওয়া হবে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবন গণভবনে। আর্মি স্টেডিয়ামে জনসাধারণের জন্য সেটি উন্মুক্ত থাকবে পরের দিন।

এ প্রসঙ্গে বাফুফে সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, ‘ট্রফিটি বাংলাদেশ থেকে যাবে পূর্ব তিমুরে। ৮ জুন ট্রফি প্রদর্শনী নেই। এদিন শুধুমাত্র বঙ্গভবন ও গণভবনে ট্রফি যাবে। পরের দিন বিকালে আর্মি স্টেডিয়ামে কনসার্ট হবে। সেই কনসার্টে জনসাধারণের প্রবেশ থাকলেও ছবি তোলার সুযোগ থাকবে সীমিত।’

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top
error: Content is protected !!