‘শিশুদের তাড়াতে’ ফাঁকা গুলি, মন্ত্রীর ছেলেকে গণপিটুনি

int-20220124103010.jpg

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ভারতের বিহারে একটি বাগানে খেলাধুলা করছিল বাচ্চারা। তাদের সেখান থেকে সরাতে ফাঁকা গুলি ছোড়ে বিজেপি মন্ত্রীর ছেলে। গুলির শব্দে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন স্থানীয়রা। এতে হুড়োহুড়িতে পদপিষ্ট হয়ে আহত হন শিশুসহ কয়েকজন। এরপরই ওই মন্ত্রীর ছেলেকে মারধর করেন বিক্ষুব্ধ জনতা।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) বিহারের পশ্চিম চম্পারণ জেলায় এ ঘটনা ঘটে।সংবাদ প্রতিদিন জানায়, চম্পারণ জেলার হরদিয়া গ্রামে বিহারের পর্যটনমন্ত্রী নারায়ণ প্রসাদের একটি খামারবাড়ি রয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, গ্রামের বাচ্চারা ওই বাড়ির বাগানে ক্রিকেট খেলছে বলে খবর পেয়ে লোকজন নিয়ে সেখানে যান মন্ত্রীর ছেলে বাবলু কুমার। এরপর বাচ্চাদের ভয় দেখিয়ে সেখান থেকে সরিয়ে দিতে পিস্তল থেকে ফাঁকা গুলি চালান তিনি। এতে হুড়োহুড়ির ফলে পদপিষ্ট হয়ে আহত হন এক শিশুসহ কয়েকজন গ্রামবাসী।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন স্থানীয়রা। তারা বাবলুর আগ্নেয়াস্ত্র কেড়ে নিয়ে বেধড়ক মারধর করেন। মন্ত্রীর নাম লেখা নাম্বার প্লেট খুলে নিয়ে তার গাড়িও ভাঙচুর করা হয়। পরে পুলিশ গ্রামবাসীর হাত থেকে বাবলুকে উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে পশ্চিম চম্পারণ জেলার পুলিশ সুপার উপেন্দ্র বর্মা জানান, গ্রামবাসীর পাশাপাশি মন্ত্রীর ছেলেও আহত হয়েছেন। তার আগ্নেয়াস্ত্র বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। সেটি পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করানো ছাড়াও ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এ ঘটনায় বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হয়েছে বিহারের বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো।

এদিকে, এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মন্ত্রী নারায়ণ প্রসাদ। তিনি দাবি করেছেন, তার খামারবাড়িটি জবরদখল করার চেষ্টা করছিল একদল লোক। খবর পেয়ে তাদের রুখতে সেখানে যায় তার ছেলে। কিন্তু তার ওপর হামলা চালানো হয় এবং লাইসেন্স করা পিস্তলটিও কেড়ে নেয় হামলাকারীরা।

তিনি বলেন, সব অভিযোগ ভিত্তিহীন। আমার সুনাম ক্ষুণ্ন করার জন্য এগুলো রাজনৈতিক ষড়যন্ত্র।

Share this post

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top
error: Content is protected !!